- Advertisement -

৯ কোটি টাকার স্বর্ণ নিয়ে নদীতে লাফ, মিলল মরদেহ

চুয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গা সীমান্তে কোটি টাকার স্বর্ণের বার কোমরে বেঁধে ভারতে পাচারের সময় নদীতে ডুবে মিরাজ হোসেন (২২) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার (৮ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার নাস্তিপুর গ্রামের মাথাভাঙ্গা নদী থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত মিরাজ হোসেন একই গ্রামের ইয়াসিন আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, দীর্ঘদিন থেকে ভারতে স্বর্ণ চোরাচালান করে আসছিলেন মিরাজ। আজ বিকেলে বিপুল পরিমাণ স্বর্ণের বার কোমরে বেঁধে নদী পথে বাংলাদেশ থেকে ভারতে পাচার করছিলেন তিনি। একপর্যায়ে নদীর পানিতে ডুবে নিখোঁজ হন তিনি। নিখোঁজ হওয়ার দুই ঘণ্টা পর তার মরদেহ ভেসে ওঠে। পরে ঘটনাস্থল থেকে ফায়ার সার্ভিসের সহযোগিতায় নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা জানান, নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ওই ঘটনায় আইনি বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির পরিচালক লেফট্যানেন্ট কর্নেল সাঈদ মোহাম্মদ জাহিদুর রহমান বলেন, মিরাজের দেহ তল্লাশি করে ছোট-বড় মিলিয়ে ৬৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়েছে। এর ওজন ১০ কেজি ২৬৩ গ্রাম যার বাজার মূল্য আনুমানিক ৯ কোটি ২০ লাখ টাকা। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের বারগুলো চুয়াডাঙ্গা ট্রেজারি অফিসে জমা দেওয়া হবে।

মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published.

প্রতিনিয়ত সি এন এন ঢাকার সর্বশেষ খবর মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে.. হ্যা বিস্তারিত