- Advertisement -

আমরা সংবিধান ছাড়া কারো সিদ্ধান্ত মেনে নেব না

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমরা আমাদের সংবিধান ছাড়া কারো সিদ্ধান্ত মেনে নেব না। শেখ হাসিনা ছাড়া নির্বাচন হবে না। শেখ হাসিনা থাকবেন নির্বাচনকালীন সরকারের প্রধান। নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে, আর তখন নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্ব পালন করবেন বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি তখনও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন।

রোববার (৮ অক্টোবর) রাতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ড সভা শেষে এক ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

বিএনপির সমালোচনা করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনাকে সরানোর জন্য নয়, এটা তো তাদের (বিএনপি) স্বভাবসুলভ মিথ্যাচারের বহিঃপ্রকাশ। তাদের টার্গেট হচ্ছে ইলেকশন উইদাউট শেখ হাসিনা। তাদের টার্গেট হচ্ছে শেখ হাসিনার পদত্যাগ। তাদের একদফার মূল কথা হচ্ছে শেখ হাসিনার পদত্যাগ। শেখ হাসিনার পদত্যাগ নয়, এটা তাদের মিথ্যাচারের অংশ হিসেবেই বলে মনে করি।

ওবায়দুল কাদের পরিষ্কার করে বলেন, ষড়যন্ত্র দেশ থেকে হোক বিদেশ থেকে হোক, আমাদের এ নিয়ে কোনো মাথাব্যথা নেই। আমরা বুঝি আমাদের সংবিধান। নির্বাচন কীভাবে হবে আমাদের সংবিধানে রয়েছে। আমরা যাই করি সংবিধানসম্মতভাবে করব। দেশ থেকে বিদেশ থেকে কে কোন চাপ দিলো, এসব নিয়ে আমাদের মাথাব্যথা নেই।
রোববার (৮ অক্টোবর) সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভায় দুটি উপ-নির্বাচনের দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

সভা শেষে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের জানান,  ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে মো. শাহজাহান আলম ও লক্ষ্মীপুর-৩ আসনে মোহাম্মদ গোলাম ফারুককে দলীয় প্রার্থী মনোনীত করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published.

প্রতিনিয়ত সি এন এন ঢাকার সর্বশেষ খবর মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে.. হ্যা বিস্তারিত