- Advertisement -

বিদেশে আটক ৯০ শতাংশ ভিক্ষুকই পাকিস্তানি

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব জুলফিকার হায়দার একটি মন্তব্য করে নিজ দেশে শোরগোল ফেলে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, বিদেশে আটক হওয়া ৯০ শতাংশ ভিক্ষুক পাকিস্তানি।

তা ছাড়া সৌদি আরবের হারাম শরিফের মতো পবিত্র স্থানগুলোয় আটক হওয়া অধিকাংশ পকেটমারই তার দেশের।

 

দেশটির শীর্ষ সংবাদমাধ্যম দ্য ডনের খরব এটি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের দক্ষ ও অদক্ষ শ্রমিক দেশ ছেড়ে যাওয়ার বিষয়ে সিনেট প্যানেলে এক আলোচনায় মন্তব্যটি করেন জুলফিকার হায়দার।

এদিকে, পাকিস্তানি বিষয়ক সিনেটের স্থায়ী কমিটি গত বুধবার বলেছে, পাকিস্তান থেকে ক্রমবর্ধমান সংখ্যক ভিক্ষুক বিদেশে পাড়ি জমানোয় মানব পাচার বেড়ে যাচ্ছে।

সিনেট প্যানেলের আলোচনায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব জুলফিকার হায়দার কমিটিকে বলেন, অনেক ভিক্ষুক সৌদি আরব, ইরান এবং ইরাক ভ্রমণের জন্য হজযাত্রীদের ভিসাকে কাজে লাগিয়েছে। কাবা ঘরের মতো পবিত্র জায়গাগুলোয় আটক হওয়া উল্লেখযোগ্য সংখ্যক পকেটমারও পাকিস্তানি নাগরিক। মোট কথা বিদেশে গ্রেপ্তারকৃত ৯০ শতাংশ ভিক্ষুকই পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত।

ভিক্ষুক বা পকেটমারের মতো ব্যক্তিরা এখন জাপানেও যাচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

বৈঠকে তিনি দক্ষ শ্রম রপ্তানিতে পাকিস্তানের ঐতিহাসিক ভূমিকার ওপর জোর দেন। আশা প্রকাশ করে তিনি এও বলেন, সৌদি আরব এখন অপ্রশিক্ষিত ব্যক্তিদের চেয়ে দক্ষ শ্রমকে প্রাধান্য দেয়। তাই পেশাদাররা বিদেশে গেলে দেশের বৈদেশিক রেমিটেন্স বাড়বে।

এর আগে তিনি বিদেশি নিয়োগকর্তাদের দৃষ্টিতে পাকিস্তানি কর্মীদের দক্ষতা এবং বিশ্বস্ততার বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি এও স্বীকার করেন, দক্ষতার দিক থেকে বাংলাদেশ ও ভারত পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে।

মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published.

প্রতিনিয়ত সি এন এন ঢাকার সর্বশেষ খবর মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে.. হ্যা বিস্তারিত