- Advertisement -

আজারবাইজানের অভিযানে নাগোরনো-কারাবাখে নিহত ২০০!

বিতর্কিত নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চলে আজারবাইজানের সামরিক অভিযানে ২০০ জন নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন এক বিচ্ছিন্নতাবাদী আরমেনিয়ান মানবাধিকার কর্মকর্তা। অভিযানে ৪০০ মানুষ আহত হয়েছেন বলেও দাবি তার।

খবর এনডিটিভির।

 

বৃহস্পতিবারের (২১ সেপ্টেম্বর) প্রতিবেদনে এনডিটিভি জানিয়েছে, গেঘাম স্টেপানিয়ান নামে ওই আরমেনিয়ান মানবাধিকার কর্মকর্তার দাবি, আজারবাইজানের অভিযানে নিহতদের মধ্যে বোসামরিক নাগরিকও রয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্সে গেঘাম স্টেপানিয়ান এক পোস্টে এ দাবি করেন। নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চলে আজারবাইজানের সামরিক অভিযানে হতাহত ৬০০ জনের মধ্যে ১০ জন বেসামরিক নাগরিক রয়েছে; তারা নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে আবার ৫ জন শিশু, তিনি লেখেন।

আজারবাইজান সরকার অভিযানের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও তাদের সেনাদের হতাহতের ব্যাপারে কোনো তথ্য প্রকাশ করেনি। বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় দেশটির প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ বলেন, নাগোরনো-কারাবাখে সামরিক অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় কিছু আজারি সৈন্য নিহত ও কয়েকজন আহত হয়েছেন।

নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চলটি আরমেনিয়ার নিয়ন্ত্রণাধীন। গত মঙ্গলবারও আজারবাইজানের সামরিক বাহিনী অঞ্চলটিতে অভিযান চালিয়েছিল।

এদিকে আজারবাইজানের ভূখণ্ড হিসেবে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত কিন্তু জাতিগত আরমেনিয় ছিটমহল নাগোরনো-কারাবাখে বিচ্ছিন্নতাবাদী বাহিনীর সদস্যরা আত্মসমর্পণ ও অস্ত্রবিরতির চুক্তিতে রাজি হয়। বুধবারই দুই দেশ এ চুক্তি রাজি হলেও বিতর্কিত ভূখণ্ডটির পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ পুনরুদ্ধারে সামরিক অভিযান শুরু করে বাকু।

অথচ দেশ দুটির অস্ত্রবিরতি কার্যকর হয়েছিল বুধবার স্থানীয় সময় দুপুর ১টা থেকে। চুক্তির শর্ত ছিল নাগোরনো-কারাবাখে আরমেনিয় বিচ্ছিন্নতাবাদী বাহিনীকে নিরস্ত্র করা পূর্বক ভেঙে ফেলা হবে।

মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published.

প্রতিনিয়ত সি এন এন ঢাকার সর্বশেষ খবর মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে.. হ্যা বিস্তারিত