- Advertisement -

নির্বাচন নিয়ে চাপে গণমাধ্যম : মোমেন

আগামী জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে সরকার কোনো চাপে নেই, বরং গণমাধ্যম চাপে আছে। এমনটি বলেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। বৃহস্পতিবার (৩১ আগস্ট) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

 

রাষ্ট্রপতির আসন্ন ইন্দোনেশিয়া সফর নিয়ে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে প্রশ্ন করা হয়, আগামী জাতীয় নির্বাচন নিয়ে পশ্চিমাদের চাপ রয়েছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যে নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠেয় জি-২০ সম্মেলনের ফাঁকে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বৈঠকের কথা রয়েছে। দুই সরকার প্রধানের বৈঠকে নির্বাচন প্রসঙ্গ নিয়ে আলোচনা হবে কি না।

উত্তরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন জানান, সরকারপ্রধানের বৈঠকগুলো শেষ মুহূর্তে ঠিক হয়। দুই প্রধানমন্ত্রীর অবশ্যই বৈঠকের সম্ভাবনা আছে। ভারতে আমরা গেলে অবশ্যই সাক্ষাতের সম্ভাবনা আছে এবং তারা (হাসিনা-মোদি) দ্বিপক্ষীয় এবং আন্তর্জাতিক ইস্যু নিয়ে আলোচনা করবেন।

নির্বাচন নিয়ে পশ্চিমাদের চাপের বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা খুব চাপ-টাপের মধ্যে নেই। মিডিয়া মনে হয় চাপে আছে। আমরা যেটিতে বিশ্বাস করি, আমরা একটি স্বচ্ছ নির্বাচন করতে চাই, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করতে চাই। শেখ হাসিনা সরকার বাংলাদেশে নির্বাচন এবং গণতান্ত্রিক ধারাকে টেকসই করেছে। শেখ হাসিনার কমিটমেন্ট ফ্রি, ফেয়ার অ্যান্ড ক্রেডিবল নির্বাচন। এতে আমরা বিশ্বাস করি। সুতরাং আমরা কোনো চাপে নেই।

সরকার চাপে নয়, বরং নিজেদের তাগিদে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন করবে বলে জানান ড. মোমেন। তিনি বলেন, আমরা নিজেদের তাগিদে স্বচ্ছ নির্বাচন করব। কারও চাপের মুখে পড়ে স্বচ্ছ নির্বাচনের কথা চিন্তা করি না। অন্য যারা আমাদের চাপ দেয়, তারা নিজের চেহারা দেখতে পারে, তাদের ওখানে তো গন্ডগোল। তাদের ওখানে নির্বাচন নিয়ে নানা সমস্যা।

মন্ত্রী বলেন, আমরা বাংলাদেশের জনগণের ওপর বিশ্বাস করি। তারা কখনও ভুল সিদ্ধান্ত নেয় না। ঠিক সময়ে যথাযথ সিদ্ধান্ত নেবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আগামী ৫-৭ সেপ্টেম্বর আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি জাকার্তা সফরে যাচ্ছেন।

মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published.

প্রতিনিয়ত সি এন এন ঢাকার সর্বশেষ খবর মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে.. হ্যা বিস্তারিত