- Advertisement -

সড়কে বেপরোয়া ট্রাক, একদিনে নিহত ১৩

সিএনএন ঢাকা প্রতিবেদক :

দেশের সড়ক মহাসড়কে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ট্রাকের গতি চোখে ঘুম আর অদক্ষ ড্রাইভারের কারণে প্রতিদিনই সড়কে বাড়ছে দুঘটনা । নরসিংদীর শিবপুরে ট্রাক ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ৭ জনসহ চার জেলায় একদিনে ব্যবধানে সড়কে নিহত ১৩ জন । সবগুলো সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে ট্রাকের সাথে । নরসিংদীর শিবপুরের ইটাখোলায় ট্রাক ও মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে অন্তত সাতজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও চারজন। আহতদের মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে ঢাকা সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের ইটাখোলা নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে একজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তার নাম জুবায়দুল (৩০)। পুলিশ জানিয়েছে, রাতে ঢাকা থেকে একটি মাইক্রোবাস সিলেট যাচ্ছিল। মাইক্রোবাসটি ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের শিবপুরের ইটাখোলা নামক স্থানে পৌঁছলে বিপরিত দিক থেকে আসা একটি ট্রাকের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই পাঁচজন মারা যায়। আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতাল নেওয়ার পথে একজন ও হাসপাতালের নেওয়ার পর আরও একজন মারা যায়। গুরুতর আহত হয় চারজন। তাদেরকে আশঙ্কাজন অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ইটাখোলা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ কবির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
রামপাল : বাগেরহাটের রামপাল উপজেলায় ট্রাকের ধাক্কায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে খুলনা-মোংলা মহাসড়কের বেলাই নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-রামপাল উপজেলার শংকর নগর এলাকার মোহাম্মদ বাশারের ছেলে মোহাম্মদ এনামুল (২৬), বেলাই এলাকার মো. মোতাচ্ছেরের ছেলে আরিফ (২৭) ও ফকিরহাট উপজেলার লকপুর গ্রামের শুকুরের ছেলে সাইদুল (২৫)। নিহতরা বেলাই এলাকার একটি মৎস্য ঘেরের কর্মচারী বলে জানা গেছে।

রামপাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আশরাফুল আলম বলেন, রামপালের ফয়লা হাট থেকে বাজার করে খুলনা-মোংলা মহাসড়ক দিয়ে মোটরসাইকেলে করে ঘেরে যাচ্ছিলেন তারা। পথে বেলাই এলাকায় তাদের মোটরসাইকেলটি এলে একটি ট্রাক ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই তিনজনের মৃত্যু হয়।
ওসি আরও বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিস মরদেহ উদ্ধার করেছে। নিহতদের পরিবারের সদস্যদের খবর দেওয়া হচ্ছে। পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।
নোয়াখালী : নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বেপরোয়া গতির ট্রাকের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার এক যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ সময় অটোরিকশার অন্য দুই যাত্রী গুরুতর আহত হয়।

বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৯টার দিকে উপজেলার নোয়াখালী-ফেনী আঞ্চলিক মহাসড়কের সেতুভাঙ্গা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মোহাম্মদ কবির (৫০) উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের ছমিরমুন্সি গ্রামের মো. হোসেনের ছেলে।
স্থানীয়দের থেকে জানা যায়, চৌমুহনীগামী অজ্ঞাত একটি ট্রাক ফেনীগামী সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে যাত্রী কবির ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ ছাড়া আরো দুই যাত্রী গুরুতর আহত হয়। আহতরা জেলা শহর মাইজদীর হলি কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। নিহতের মরদেহ ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে রাখা আছে। চন্দ্রগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মফিজ উদ্দিন ভূঁইয়া জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পালিয়ে যাওয়া ট্রাকটি আটকের চেষ্টা চলছে।
দিনাজপুর : দিনাজপুরের বিরামপুরে ট্রাক ও ইজিবাইকের মুখোমুখি সংঘর্ষে শিশুসহ দুইজন নিহত হয়েছে। এ ছাড়া আহত হয়েছে আরও চারজন। বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটার দিকে বিরামপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের বিরামপুর পৌর শহরের ঘোড়াঘাট রেলঘুমটি সংলগ্ন রিভান্স গ্যাস পাম্পের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-আব্দুর রহমান (৫৬)। তিনি বিরামপুর উপজেলার ৪ নম্বর দিওড় ইউনিয়নের বড় বাইলশিরা গ্রামের আব্দুল মালেকের ছেলে। অপরজন শিশু সিয়াম (৪)। সে বিরামপুর পৌর শহরের দোশরা পলাশবাড়ী মহল্লার সুলতান মিয়ার ছেলে।

আহতরা হলেন-বিরামপুর উপজেলার দিওড় ইউনিয়নের বড় বাইলশিরা গ্রামের আকবর আলীর ছেলে ইজিবাইক চালক কবির হোসেন (৪০), কবির হোসেনের স্ত্রী ফাতেমা (৩২), তার মেয়ে শিশু আয়শা সিদ্দিকা (১০ মাস) এবং একই গ্রামের মৃত কেরামতের ছেলে আব্দুল মতিন (৫৫)। জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেলে বিরামপুর পৌর শহরের ঘোড়াঘাট রেলঘুমটি সংলগ্ন রিভান্স গ্যাস পাম্পের সামনে যাত্রীবাহী ইজিবাইকের সঙ্গে দিনাজপুরগামী একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ইজিবাইকের যাত্রী আব্দুর রহমান ঘটনাস্থলে মারা যান। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত পাঁচজনকে উদ্ধার করে বিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। কর্তব্যরত চিকিৎসক আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠান। রংপুর যাওয়ার সময় পথেই শিশু সিয়াম মারা যায়। বিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুব্রত কুমার সরকার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ট্রাকের চালক ও হেলপারসহ ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published.

প্রতিনিয়ত সি এন এন ঢাকার সর্বশেষ খবর মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে.. হ্যা বিস্তারিত