- Advertisement -

বাংলায় দাঙ্গা লাগতে দেবেন না: মমতা

কলকাতা: বছর ঘুরলেই ভারতে লোকসভা ভোট। তার আগে পশ্চিমবঙ্গকে অশান্ত করার চেষ্টা হচ্ছে।

সোমবার(২১ আগস্ট) কলকাতার নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামে রজ্যের ইমাম, মোয়াজ্জেমদের সভা থেকে এমনই অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

মমতা বলেছেন, আমার কাছে খবর আছে বিজেপির কিছু নেতা আপনাদের ভাগাভাগি করার জন্য আপনাদের লোকজনদের টাকা দিচ্ছে। তাই ইমাম, মোয়াজ্জেমদের বলব, দুশমনরা বিজেপির কাছ থেকে টাকা নিয়ে আপনাদের মধ্যে বিভেদ তৈরির চেষ্টা করবে. তাদের থেকে দূরে থাকুন। বাংলায় দাঙ্গা লাগতে দেবেন না। বাংলায় সম্প্রীতি বজায় রাখুন।

এক্ষেত্রে বিজেপি, সিপিআইএম এবং কংগ্রেস একযোগে কাজ করছে বলে অভিযোগ করেছেন মমতা। তিনি বলেছেন, বিজেপি, সিপিআইএম এবং কংগ্রেস হলো জগাই-মাধাই-গদাই। এই তিনজনে মিলে বোর্ড গঠন করেছে।

মিথ্যা প্রচার আর দাঙ্গা লাগানোর জন্য তার সঙ্গে জুটেছে আর একটা। ‘আর একটা’ বলতে মমতা নাম না করে আইএসএফ এর দিকে আঙুল তুলেছেন। প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের বিধানসভা ভোটের আগে ইন্ডিয়ান সেকুলার ফ্রন্ট অর্থাৎ আইএসএফ নামে একটি দল গঠন করেছে ফুরফুরা শরীফের পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকী। ওই সালে জোট সিপিআইএম শূন্য আসন পেলেও আব্বাস সিদ্দিকীর ভাই নওসাদ সিদ্দিকী জয় পেয়েছে। তিনি একমাত্র আইএসএফের জয়ী বিধায়ক।

মমতা এদিন আরো বলেছেন, কোনো হিন্দুরা অশান্তি চায় না। মুসলমানেরাও দাঙ্গা চায় না। দাঙ্গা বাঁধায় রাজনৈতিক দল। গেরুয়াধারীদের(বিজেপি) তো ওটাই টার্গেট। ওরা তো চায় সংখ্যালঘুদের টেররিস্ট বানাতে। বাংলায় আমি এসব বরদাস্ত করব না। ওরা আমার নামেও কুৎসা করেছে, অপপ্রচার করেছে। বিজেপির লোকেরা তো আমার নামটাই পাল্টে দিয়েছিল। প্রসঙ্গত, রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘বেগম মমতা’ বলে কটাক্ষ করেন।

এরপরই মমতার সংযোজন, কই আমি যখন আদিবাসীদের সঙ্গে ডান্স করি তখন তো কেউ কিছু বলেন না। তারাও তো সংখ্যালঘু। যত রাগ মুসলিম সংখ্যালঘুদের দেখলে। সংখ্যালঘু দেখলেই ওদের রাগ হয়। রাজ্য সরকারের তরফে রেশন থেকে যখন বিনা পয়সায় চাল দেওয়া হয় তা কি হিন্দু মুসুলমান দেখে দেওয়া হয়? আমি তো ভেদাভেদ করি না। এই ভেদাভেদি বিজেপির মধ্যে রয়েছে। তাই মনে রাখবেন আমার একটাই খিদে বিজেপি হঠাও, ইন্ডিয়া বাঁচাও।

একই সঙ্গে সোমবার মুখ্যমন্ত্রী, মসজিদের ইমাম ও মোয়াজ্জেমদের মাসিক ভাতা ৫০০ রুপি করে বাড়িয়েছেন। সেই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, মন্দিরের পুরোহিতদের ভাতাও মাসে ৫০০ রুপি করে বাড়ানো হবে।

প্রসঙ্গত, পশ্চিমবঙ্গে প্রায় ৩০ হাজার ইমাম ও ২০ হাজার মোয়াজ্জেম মমতার সরকারের থেকে এই আর্থিক সুবিধা পেয়ে আসছেন। ইমামরা মাসে ২৫০০ রুপি করে ভাতা পেতেন। আর মোয়াজ্জেমরা ভাতা পেতেন মাসে এক হাজার রুপি করে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই ঘোষণার পর ইমামরা মাসে ৩ হাজার রুপি এবং মোয়াজ্জেমরা পাবেন মাসে ১৫০০ রুপি করে।

এ প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, ওয়াকফ থেকে একটা ভাতা ইমাম, মোয়াজ্জেমদের দেওয়া হয়। ওটা আমরাই দিই। এবার থেকে ইমাম, মোয়াজ্জেমদের ভাতা মাসে আরো ৫০০ রুপি করে বাড়ানো হবে। সেই সঙ্গে পুরোহিতরাও আরও ৫০০ করে ভাতা পাবেন।

মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published.

প্রতিনিয়ত সি এন এন ঢাকার সর্বশেষ খবর মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে.. হ্যা বিস্তারিত