- Advertisement -

ভয়ে ক্ষমতাসীনদের মুখ শুকিয়ে গেছে : ফখরুল

আগামী নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিদেশিদের চাপের মুখে ভয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতাদের মুখ শুকিয়ে গেছে বলে দাবি করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ক্ষমতাসীন দলের নেতারা এখন ভয়ে নানা আবল-তাবল বকছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

শুক্রবার (১৮ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর দয়াগঞ্জে ঢাকা দক্ষিণ বিএনপির গণমিছিল পূর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সরকারের পদত্যাগের এক দফা দাবিতে রাজধানীতে পৃথক দুটি গণমিছিল করছে বিএনপি।

সরকারি দলের নেতাদের দিকে ইঙ্গিত করে ফখরুল বলেন, ‘আজকে শেখ হাসিনা সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনের কথা বলছেন। কোন সংবিধান? যে সংবিধান কাটাছেঁড়া করে শেষ করা হয়েছে। ভয়ে তাদের মুখ শুকিয়ে গেছে। এখন আর টেলিভিশনে চকচকে মুখ দেখা যায় না। চকচকে কাপড় পরে সামনে আসে না।’

ফখরুল বলেন, ‘আমেরিকার ভিসানীতির ভয়ে তারা অনেক উল্টাপাল্টা কথা বলা শুরু করেছে। এখন ভারত মহাসাগর আর আরব সাগর বলে লাভ নাই। কোনো দিকেই পালানোর পথ নাই।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করছি, আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ র‌্যাব হায়েনার মতো হমলা করছে। গ্রেফতার করেছে। আমাদের অনেক ভাই জীবন দিয়েছেন, তাদের রক্তকে আমরা বৃথা যেতে দেব না।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘শেখ হাসিনার সময় শেষ। এখন তিনি কীভাবে বিদায় নেবেন সেটা তাকে ভাবতে হবে। তাকে আর ক্ষমতায় থাকতে দেওয়া হবে না।’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি আবদুস সালাম বলেন, ‘গ্রেফতার করে আন্দোলন থামানো যাবে না। শেখ হাসিনার আর বেল নাই। ভুয়া কাদের মন্ত্রণালয় চালাতে পারে না। আমরা মারামারি চাই না। কিন্তু আওয়ামী লীগ মারামারি করতে চাইলে ছেড়ে দেওয়া হবে না। আপনারা তারেক রহমানকে মারতে চান। বিএনপি নেতাকর্মীরা বেঁচে থাকতে তারেক রহমানের একটা চুলও ছিঁড়তে পারবেন না।’

সালাম বলেন, ‘আপনারা খালেদা জিয়াকে জেলে বন্দী করেছেন। তাকে কী খাইয়েছেন? ধরা পড়ার ভয়ে তাকে বিদেশে চিকিৎসার জন্য যেতে দিচ্ছেন না। এখন চারদিকে একটাই দাবি উঠেছে, শেখ হাসিনা কবে যাবি।’

মন্তব্য লিখুন

Your email address will not be published.

প্রতিনিয়ত সি এন এন ঢাকার সর্বশেষ খবর মোবাইলে নোটিফিকেশন পেতে.. হ্যা বিস্তারিত